বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ১০:২৭ অপরাহ্ন

একদিনের কাপ্তাই ভ্রমণে ঘুরে দেখবেন যেসব স্পট

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১১ মে, ২০২৩

ওয়াশিংটননিউজ,  ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১১ মে ২০২৩ : প্রকৃতির বিস্ময়কর সৌন্দর্য লুকিয়ে আছে রাঙামাটিতে। সবুজ অরণ্য আর ছোট-বড় পাহাড়ে ঘেরা রাঙামাটি যেন কোনো শিল্পীর তুলিতে আঁকা রূপকথার এক স্থান। রাঙামাটির নাম শুনতেই অনেকের চোখে ভেসে ওঠে কাপ্তাই লেকের দৃশ্য।

মনোমুদ্ধকর প্রাকৃতিক দৃশ্যমণ্ডিত এক স্থান হলো কাপ্তাই। এর আশপাশের পাহাড়, লেক, সবুজ প্রকৃতি উপভোগ করতেই পর্যটকরা ভিড়েন স্থানটিতে। চাইলে একদিনেই অল্প খরচে ঘুরে আসতে পারবেন কাপ্তাই লেকসহ এর আশপাশের বিভিন্ন পর্যটন কেন্দ্রগুলো।

ঢাকা থেকে কাপ্তাই লেকে যেতে হলে সরাসরিই যেতে পারবেন বাসে। যানজট না থাকলে পৌঁছাতে পারবেন ৭-৮ ঘণ্টার মধ্যেই। নন এসি বাসে ভাড়া পড়বে ৫০০-৭০০ টাকা, আর এসি বাসে ৯০০-১০০০ টাকার মধ্যেই যেতে পারবেন সেখানে।

ট্রেনে কাপ্তাই লেক সরাসরি যাওয়ার ব্যবস্থা নেই। তবে ট্রেন ভ্রমণ করতে চাইলে চট্টগ্রাম পর্যন্ত রেলপথে যেতে হবে। তারপর পরিবহন পরিবর্তন করে কাপ্তাই পৌঁছাতে পারবেন

ঘণ্টাপ্রতি ভাড়া পড়বে ২০০-৩০০ টাকা। কায়াকিংয়ের সুব্যবস্থাও আছে সেখানে। আরও দেখতে পারেন ঝুলন্ত ব্রিজ, শুভলং ঝরনা, ক্যাবল কারে করে যেতে পারেন শেখ রাসেল ইকোপার্কে।

এছাড়া কাপ্তাই গিয়ে ঘুরে দেখতে পারবেন-

> >কাপ্তাই বাঁধ
>> কর্ণফূলী পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র
>> নেভি ক্যাম্প পিকনিক স্পট
>> জুম রেস্তোলা পিকনিক স্পট
>> ওয়াগ্গাছড়া টি
>> চিৎমরম বৌদ্ধ মন্দির
>> নিসর্গ পড হাউজ ইত্যাদি।

কোথায় থাকবেন?

চাইলে একদিনেই ঘুরে আসতে পারবেন কাপ্তাই লেকে। আর রাত্রিযাপন করতে চাইলে সরকারি রেস্ট হাউসের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আগে থেকেই কথা বলে রাখবেন।

এছাড়া সেনাবাহিনী, পিডিবি ও বন বিভাগেরও কিছু রেস্ট হাউজেও থাকতে পারবেন। তবে তা অনুমতিসাপেক্ষে। কয়েকটি পিকনিক স্পট যেমন- লেক শোর, লেক প্যারাডাইস, জুম রেস্তোরাঁতেও থাকতে পারবেন। তবে অর্থ বেশি খরচ হবে। চাইলে নিসর্গ পড হাউজেও থাকতে পারবেন।

খাবেন কোথায়?

এই লেক ঘিরে বেশ কিছু রেস্তোরাঁ গড়ে উঠেছে। এগুলো থেকেই খাবার কিনে খেতে পারবেন। এসব রেস্তোরাঁয় তাজা মাছ খেতে পারবেন।

সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত এসব হোটেলে কম মূল্যেই খাবার পাবেন। কাপ্তাইয়ের কাছাকাছি কয়েকটি জনপ্রিয় রেস্তোরাঁ হলো- লেক শোর হোটেল, জুম রেস্তোরাঁ, প্যারাডাইস ক্যাফে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ