বুধবার, ১২ জুন ২০২৪, ০৯:১৮ অপরাহ্ন

গাড়িবোমা হামলার জন্য ইউক্রেন ও যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে রাশিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশের সময় : রবিবার, ৭ মে, ২০২৩

ওয়াশিংটননিউজ, ঢাকা, রবিবার, ০৭ মে ২০২৩ : ক্রেমলিনপন্থী লেখক জাখার প্রিলেপিনকে নিশানা করে গাড়িবোমা হামলার জন্য ইউক্রেন ও তার সমর্থক পশ্চিমা দেশগুলো, বিশেষ করে যুক্তরাষ্ট্রকে দায়ী করেছে রাশিয়া।

প্রিলেপিন সুপরিচিত রুশ জাতীয়তাবাদী লেখক। ইউক্রেনে রাশিয়ার চলমান সামরিক অভিযানের একজন ঘোরসমর্থক তিনি। গতকাল শনিবার তাঁকে নিশানা করে গাড়িবোমা হামলা হয়। হামলায় তিনি আহত হয়েছেন। তাঁর গাড়িচালক নিহত হয়েছেন।

রুশ তদন্তকারীরা বলেছেন, হামলাকারী সন্দেহে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। তিনি ইউক্রেনের পক্ষে কাজ করার কথা স্বীকার করেছেন।

ঘটনাটি নিয়ে রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তার ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে দিয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়, এটিসহ অন্যান্য সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের দায় শুধু ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষের নয়, তাদের পশ্চিমা পৃষ্ঠপোষকদেরও দায় আছে। এর প্রথম উদাহরণ যুক্তরাষ্ট্র।

দিন কয়েক আগেই রাশিয়া বলেছিল, রুশ প্রেসিডেন্টের সরকারি বাসভবন ক্রেমলিনে ড্রোন দিয়ে হামলার চেষ্টা করেছে ইউক্রেন। তবে এ হামলায় জড়িত থাকার কথা ইউক্রেন অস্বীকার করেছে। এর তিন দিন পর গাড়িবোমা হামলার ঘটনাটি ঘটল।

ইউক্রেনের নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকা বা না থাকার বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে চায়নি। তবে ইউক্রেনের একজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা এ ঘটনার জন্য রাশিয়াকেই দায়ী করেছেন।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় তদন্ত কমিটি বলেছে, প্রিলেপিনের অডি কিউ–৭ গাড়িটি রাজধানী মস্কো থেকে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার পূর্বের নিঝনি নভগোরোদ এলাকার একটি গ্রামে বিস্ফোরণে উড়ে যায়। তারা ঘটনাটিকে সন্ত্রাসবাদী কাজ হিসেবে বিবেচনা করছে। প্রিলেপিনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে তারা।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় তদন্ত কমিটি একটি ছবি প্রকাশ করেছে। ছবিতে দেখা যায়, সাদা রঙের গাড়িটি উল্টে পড়ে আছে। গাড়িটির পাশে একটি গভীর গর্ত। গাড়ির আশপাশে ধাতুর টুকরা ছড়িয়ে আছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সন্দেহভাজন ব্যক্তি বলেছেন, তিনি ইউক্রেনের বিশেষ নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষের নির্দেশে কাজ করেছেন।

নিঝনি নভগোরোদ অঞ্চলের গভর্নর গ্লেব নিকিতিন টেলিগ্রামে বলেছেন, চিকিৎসকেরা সফলভাবে প্রিলেপিনের অস্ত্রোপচার করেছেন। তাঁকে ঘুমের ওষুধ দেওয়া হয়েছে।

রাশিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, এটিসহ অন্যান্য হামলার নিন্দা জানাতে ওয়াশিংটনের ব্যর্থতা মার্কিন প্রশাসনের ‘মুখোশ উন্মোচন’ করেছে।

নিরাপত্তা সূত্রের বরাত দিয়ে রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা তাস বলেছে, সন্দেহভাজন ব্যক্তি ‘ইউক্রেনের স্থানীয় অধিবাসী’। সহিংস ডাকাতির দায়ে তিনি আগে জেল খেটেছেন।

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা মাইখাইলো পোদোলিয়াক বলেছেন, তিনি মনে করেন, রাশিয়ার কর্তৃপক্ষই এ হামলা সাজিয়েছে।

 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো সংবাদ